বিরক্তিকর সব কল ও এসএমএস ব্লক করে দিন ছোট একটি Android Apps দিয়ে।

আসসালামু ওলাইকুম।


আশা করি সবাই ভাল আছেন। আমাদের ফোনে বিভিন্ন নাম্বার থেকে প্রায়ই কল ও এস এম এস আসে, যা বিরক্তিকর লাগে। অনেক সময় মোবাইল অপারেটর গুলো তাদের বিভিন্ন অফার সম্পর্কিত এস এম এস ও কল দিয়ে গ্রাহকদের বিরক্তের শেষ সিমায় পৌছিয়ে দেয়। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে এমন একটি এন্ড্রয়েড অ্যাপস শেয়ার করব, যা দিয়ে আপনি সহজেই সকল বিরক্তিকর কল ও এস এম এস সহজেই ব্লক করে দিতে পারবেন। 

আপনার এন্ড্রয়েড ফোনকে তৈরী করুন WiFi Router আর ইন্টারনেট কানেক্ট করুন যে কোন এন্ড্রয়েড ফোন, ল্যাপটপ বা ডেক্সটপের সাথে।

আসসালামু ওলাইকুম।
হাই ফ্রেন্ড, আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব, কিভাবে আপনার এন্ড্রযেড ফোন দিয়ে আপনার ল্যাপটপ, ডেক্সটপ বা অন্য এন্ড্রয়েড ফোনের সাথে ইন্টারনেট কানেক্ট শেয়ার করবেন। যেমন আমিই নিজেই একসময় যখন বাসায় কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্যবহারের প্রয়োজন হত, তখন এন্ড্রয়েড ফোন থেকে সিম খুলে মডেম ব্যবহার করতাম। আবার যখন বাসার বাইরে যেতাম তখন মডেম থেকে সিম খুলে ফোনে লাগাতাম। যা ছিল অত্যন্ত বিরক্তিকর এবং এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য ক্ষতিকর। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে এমন একটি টিপস শেয়ার করব, যা দিয়ে আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ফোনকে মডেম হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। এবং আপনার এন্ড্রয়েড ফোন থেকে ৮-১০ জনের সাথে একসঙ্গে ইন্টারনেট কানেক্ট শেয়ার করতে পারবেন।

ডাউনলোড করে নিন ShareiT ল্যাপটপ/ডেক্সটপ ভার্সন এবং ফাইল শেয়ার করুন কোন ক্যাবল ছাড়াই।

আসসালামু ওলাইকুম।

আশাকরি সবাই ভালোই আছেন। আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব Shareit এর ডেক্সটপ/ল্যাপটপ ভার্সন। আমরা যার এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করি তারা সবাই কম বেশি Shareit এর সাথে পরিচিত। কিন্তু Shareit এর একটি কম্পিউটার ভার্সনও আছে। যা দিয়ে আপনি ল্যাপটপ টু এন্ড্রয়েড ফোন, ল্যাপটপ টু ল্যাপটপ বা ডেক্সটপ, এন্ড্রয়েড টু  ল্যাপটপ বা ডেক্সটপে কোন ক্যাবল ছাড়াই ফাইল শেয়ার করতে পারবেন। তবে প্রধান শর্ত হল ল্যাপটপ বা ডেক্সটপে আপনার এন্ড্রয়েড ফোনের মত WiFi থাকতে হবে। তবে যাদের ডেক্সটপে WiFi কানেক্ট নেই, তারা কম্পিউটারের দোকান থেকে একটি USB WiFi পোর্ট কিনে নিতে পারেন। তাহলে আপনি এটি সহ আরো অনেক সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। এর একটি Extra সুবিধা আছে। তা হল এটির মাধ্যমে আপনার এন্ড্রয়েড ফোন দিয়েই আপনার ল্যাপটপ বা ডেক্সটপ কে নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন।












[Mega Post] এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে ইউটিউবে ভিডিও দেখুন বাফারিং ছাড়াই।

আসসলামু ওলাইকুম, হাই ফ্রেন্ড আমরা যারা 2G নেটওয়ার্ক ব্যবহার করি, তারা অনেকেই ইউটিইবে ভিডিও দেখতে পারি না। কারণ 2G নেটওয়ার্কে YouTube এ ভিডিও প্লে করলে যদি ১০ সেকেন্ড ভিডিও চলে, তবে আর ২০ সেক্নেড চলে না। অর্থাৎ নেটওয়ার্ক Slow হওয়ার কারণে বাফারিং হতে থাকে। যা আমাদের Android ফোন দিয়ে YouTube এ ভিডিও দেখার মজা ও আগ্রহ দুটি-ই নষ্ঠ করে দেয়। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে এমন একটি টিপস শেয়ার করবো, যাতে আপনারা সবাই বাফারিং ছাড়াই ইউটিউবে ভিডিও দেখতে পারেন। তাহলে চলুন স্ক্রিনশট সহ দেখে নিই কিভাবে এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে ইউটিউবে বাফারিং ছাড়াই ভিডিও Play করা যায়।











সব ফরম্যাট এর ভিডিও আপনার এন্ড্রয়েড ফোনেই প্লে করুন কোন প্রকার কনভার্ট ছাড়া।

বর্তমানে আমরা সবাই কম-বেশি এন্ড্রোয়েড ফোন বা ট্যাব ব্যবহার করে থাকি। তাই আমরা এখন আমাদের প্রিয় মুভি বা গান কম্পিউটার থেকে আমাদের Android Phone বা Tab-e দেখতে বেশি পছন্দ করি। কিন্তু প্রধান সমস্যা হচ্ছে wmv, mkv, dat সহ এমন আরো অনেক ফরম্যাট আছে যা আমাদের অনেক এন্ড্রয়েড ডিভাইসে সাপোর্ট করে না। তখন আমরা বিভিন্ন কনভার্টারের সাহায্য নিয়ে থাকি, যা অনেক সময়ের ব্যাপার এবং বিরক্তিকর। এদিকে কনভার্টার দিয়ে কনভার্ট করলে ভিডিও এর রেজুলেশন খারাপ হয়ে যায়। আবার অনেকে এসব ভিডিও প্লে করার জন্য MX Player বাদে অন্য Player এর সাহয্য নিয়ে থাকে। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে স্ক্রিনশট সহ এমন একটি টিপ্স শেয়ার করব, যার মাধ্যামে কোন প্রকার বাড়তি ঝামেলা ছাড়া সব ফরম্যাট এর ভিডিও খুব সহজেই আপনার এন্ড্রোয়েড ফোনে বা ট্যাবে প্লে করতে পারবেন।

এ্যান্ড্রয়েড ফোন / ট্যাব দিয়েই Change করুন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড।


বর্তমানে এন্ড্রয়েড ফোন বা ট্যাব যে কতটা জনপ্রিয় তা বলার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না। যতই দিন যাচ্ছে কম্পিউটার থেকে এ্যান্ড্রয়েড ফোন ও ট্যাবের চাহিদা বেড়েই চলেছে। আর এখন আমরা আমদের প্রয়োজনীয় কাজগুলো Android Phone বা Tab দিয়ে করতেই বেশি পছন্দ করি। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে এমন একটি Apps শেয়ার করব, যেটা মাধ্যমে খুব সহজেই আপনার এ্যান্ড্রয়েড ফোন / ট্যাব দিয়ে  ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড চেন্জ করতে পারবেন। চলুন দেখে নিই কিভাবে এই অ্যাপস দিয়ে ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড চেন্জ করবেন।